কাটা জায়গায় চিনি দিলে কি রক্ত ঝরা বন্ধ হয়? হলেও, কেন হয়

Take Care

কাটা জায়গায় চিনি দিলে কি রক্ত ঝরা বন্ধ হয়? হলেও, কেন হয় 

“কাটা ঘায়ে চিনির ছিটা”

Take Care

কাটা ঘায়ে লবণের ছিটা প্রবাদটা বাঙ্গালীর কাছে বেশ প্রচলিত। কাটা ঘায়ে লবন কিন্তু মূলত ঘা জীবাণুমুক্তকরণ এর জন্য ব্যবহার করা হয়। তবে লবনের বদলে চিনিও কিন্তু বেশ ভালো কাজ করে।

চিনির মধ্যে থাকা সুক্রোজ কাটা ঘা ঠিক করতে বেশ ভালো ভূমিকা রাখে। কাটা ঘায়ে যখন চিনি দেওয়া হয় তখন চিনিতে থাকা সুক্রোজ ঘায়ের recovery প্রসেস দ্রুত করে দেয়।

University of Wolverhampton, United Kingdom দ্বারা এই পরীক্ষাটি স্বীকৃত। পরীক্ষাটির পরিচালনায় ছিলেন Dr. Moses Murandu, যিনি ছোটবেলায় এই এক্সপেরিমেন্টটি করেছিলেন।

তিনি জিম্বাবুয়ে বেড়ে উঠেছিলেন। যেহেতু তার আশেপাশে ওষুধের সহজলভ্যতা কম ছিল তাই তিনি কাটা ঘায়ে সরাসরি লবন দিত যাতে সে জায়গাটা জীবাণুমুক্ত হয়। কিন্তু তিনি লক্ষ্য করলেন এতে সেই জায়গার ত্বক পুড়ে যেত। একবার তিনি লবণের বদলে চিনি দিল আর খেয়াল করলো তা লবণ এর চেয়ে বেশ ভালো কাজ করছে।

তিনি নার্সিং স্কুল থেকে গ্রাজুয়েট করে নার্সিং এর ওপর প্রফেসর হওয়ার সিদ্ধান্ত নিল। তিনি খেয়াল করলেন কাটা ঘা এর প্রাথমিক ঔষধ হিসেবে চিনির ব্যবহার সম্পর্কে কেউ বলে না, তখন তিনি সিদ্ধান্ত নেন এটা গবেষণা করার। তার প্রথম গবেষণা ছিল ঘায়ে উপর চিনি কিরূপ প্রভাব ফেলে। Dr. Mrandu-র মতে কাটা ঘা ঠিক হওয়ার প্রক্রিয়া দ্রুত করার জন্য, শুধু তার উপর চিনি দিয়ে কাপড় বেঁধে দেওয়াই যথেষ্ট। এটা মানুষের মত পশু পাখির জন্যেও কাজ করে। ঘায়ের মধ্যে থাকা তরল ব্যাকটেরিয়া কে চিনিতে থাকার সুক্রোজ বেশ ভালোভাবেই শুষে নেয়, এতে জীবাণু আর ছড়াতে পারে না। তাছাড়াও বেশি পরিমাণে চিনি কাটা জায়গায় দেওয়ার ফলে তা ব্যাকটেরিয়ার সাথে এক প্রকার যুদ্ধ করে। ফলে এটা এক ধরনের প্রাথমিক অ্যান্টিবায়োটিক হিসেবে কাজ করে। আগামী তে আশেপাশে ঔষধ না পেলে কাটা জায়গায় চিনি লাগিয়ে দেখতে পারেন।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *